নৌকা থেকে সাগরে পরে গেল কুকুর ছানা, পিঠে করে ডাঙ্গায় নিয়ে আসল ডলফিন, কুকুর আর ডলফিনের ভিডিওটি তুমুল ভাইরাল নেটদুনিয়ায়!

অবশ্য অনেক তথ্যসূত্র অনুযায়ী কুকুরের গৃহ পালিতকরণের সময় আরও সাম্প্রতিক বলে ধারণা প্রকাশ করে থাকে। . নেকড়ে ও শিয়াল কুকুরের খুবই ঘনিষ্ঠ প্রজাতি (নেকড়ে আসলে একই প্রজাতি)।

তবে গৃহপালিত হওয়ার পরে কুকুরের বহু বৈচিত্র্যময় জাত (breed) তৈরি হয়েছে, যার মধ্যে মাত্র কয়েক ইঞ্চি উচ্চতার কুকুর (যেমন চিহুয়াহুয়া) থেকে শুরু করে তিন ফুট উঁচু (যেমন আইরিশ উলফহাউন্ড) রয়েছে।

কুকুরটি বিভিন্ন আচরণ, সংবেদনশীল ক্ষমতা এবং শারীরিক গুণাবলীর জন্য সহস্রাব্দে বেছে বেছে জন্মগ্রহণ করেছে। কুকুরগুলি শাবকগুলিতে উপশ্রেণীতে বিভক্ত, যা আকার, আকার এবং রঙে পৃথকভাবে পরিবর্তিত হয় । তারা মানুষের জন্য অনেক ভূমিকা পালন করে, যেমন শিকার, পাল, ভার টান, সুরক্ষা, পুলিশ এবং সামরিক বাহিনীকে সহায়তা, সাহচর্য, থেরাপি এবং অক্ষম মানুষকে সহায়তা করা। মানবসমাজের উপর এই প্রভাব তাদের “মানুষের সেরা বন্ধু” এর সংক্ষিপ্তসার দিয়েছে।

ডলফিন তিমি এবং পরপয়েজের সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কযুক্ত এক ধরনের সামুদ্রিক স্তন্যপায়ী প্রাণী। পৃথিবীতে ১৭টি গণে প্রায় ৪০টি প্রজাতির ডলফিন রয়েছে। ১.২ মিটার(৪ ফুট) দৈর্ঘ্য এবং ৪০ কেজি (৯০ পাউন্ড) ওজন (মাউয়ের ডলফিন)থেকে শুরু করে ৯.৫ মিটার (৩০ ফুট)দৈর্ঘ্য এবং ১০ টন (৯.৮ লিট; ১১ স্টোন)ওজন পর্যন্ত বিভিন্ন আকারের ডলফিন দেখা যায়। পৃথিবীজুড়েই ডলফিন দেখা যায়, বিশেষ করে মহীসোপানের কাছের অগভীর সমুদ্রে। ডলফিন মাংসাশী প্রাণী, মাছ এবং স্কুইড এদের প্রধান খাদ্য। ধারণা করা হয় দশ মিলিয়ন বছর আগে মায়োসিন যুগে ডলফিনের উদ্ভব। ডলফিনকে সবচেয়ে বুদ্ধিমান প্রাণীদের কাতারে ধরা হয়। বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ এবং খেলোয়াড়সুলভ মানসিকতা মানবসমাজের কাছে ডলফিনকে খুবই জনপ্রিয় করে তুলেছে।

সম্প্রীতি এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে জা সারা জাগিয়েছে পুরো নেট দুনিয়াই সেখানে দাখা যাই যে নৌকা থেকে সাগরে পরে গেল কুকুর ছানা, পিঠে করে ডাঙ্গায় নিয়ে আসল ডলফিন, কুকুর আর ডলফিনের ভিডিওটি তুমুল ভাইরাল নেটদুনিয়ায়!

ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন এখানেG

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*